Header Ads


moving image by marquee html code

সোনারগাঁয়ে মা-ছেলেকে কুপিয়ে আহত

  বাড়ির সীমানা নিয়ে বিরোধকে কেন্দ্র করে নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ উপজেলার মঙ্গলেরগাঁও গ্রামে গতকাল শনিবার মা-ছেলেকে কুপিয়ে ও পিটিয়ে মারাত্মকভাবে জখম করেছে প্রতিপক্ষের লোকজন। এ ঘটনায় সোনারগাঁ থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।
পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী এলাকাবাসীরা জানান, উপজেলার পিরোজপুর ইউনিয়নের মঙ্গলেরগাঁও গ্রামের দ্বীন ইসলামের সঙ্গে প্রতিবেশী শাকিল মিয়ার দীর্ঘ দিন ধরে বাড়ীর সীমানা নিয়ে বিরোধ চলে আসছিল। গতকাল তাদের মধ্যে বাকবিতন্ডা হয়। এর জের ধরে দ্বীন ইসলামের নেতৃত্বে তরিকুল ইসলাম, রিপন মিয়া, স্বপন মিয়া, চান মিয়াসহ ৮/১০ জনের একদল বাহিনী রামদা, লাঠি, লোহার রড সহ দেশীয় অস্ত্র নিয়ে হামলা চালিয়ে শাকিল মিয়াকে পিটিয়ে ও কুপিয়ে রক্তাক্তভাবে জখম করে। পরে তাকে বাচাঁতে তার মা মর্জিংনা বেগম এগিয়ে এলে তাকেও পিটিয়ে ও কুপিয়ে আহত করে। আহতদের প্রথমে সোনারগাঁ উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে ও পরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আহতদের মধ্যে শাকিল মিয়ার অবস্থা আশঙ্কাজনক। এ ঘটনায় মর্জিনা বেগমের মেয়ে রহিমা বেগম বাদি হয়ে থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন।
মামলার বাদি রহিমা বেগম জানান, বাড়ির সীমানা নিয়ে বিরোধের জের ধরেই দ্বীন ইসলাম ও তার সহযোগীরা আমার মা ও ভাইকে পিটিয়ে ও কুপিয়ে মারাত্মকভাবে আহত করেছে। অপরদিকে দ্বীন ইসলাম জানান, ঘটনাটি ঘটেছে সত্য তবে তিনি জড়িত নন বলে দাবি করেন।
সোনারগাঁ পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) এস এম ওবায়দুল হক বলেন, এ ঘটনায় থানায় মামলা নেওয়া হয়েছে। আসামীদের গ্রেফতারের জন্য পুলিশ অভিযান চালাচ্ছে।

No comments

Thanks you for comment

Powered by Blogger.