Header Ads


moving image by marquee html code

সোনারগাঁয়ে যানজটে চরম দুর্ভোগে পড়তে হচ্ছে মানুষকে

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ে গ্র্যান্ড ট্রাঙ্ক রোডের মোগরাপাড়া চৌরাস্তা এলাকায় যানজটের কারণে মানুষকে চরম দুর্ভোগে পড়তে হচ্ছে ।  যানজট নিরসনে পুলিশ ও উপজেলা প্রশাসন তেমন কাজ করছে না বলে অভিযোগ করেছে এলাকাবাসী।
স্থানীয় সূত্র জানায়, গ্র্যান্ড ট্রাঙ্ক রোডের মোগরাপাড়া চৌরাস্তা থেকে সোনারগাঁ পৌরসভার চিলারবাগ শহীদ মজনু পার্ক পর্যন্ত আধা কিলোমিটার সড়কের যানজটে নিয়মিত উপজেলার ১০টি ইউনিয়ন, পৌরসভা ও সোনারগাঁ উপজেলার পার্শ্ববর্তী কুমিল্লার মেঘনা, হোমনা ও আড়াইহাজার উপজেলার একাংশের মানুষ, স্থানীয় বিভিন্ন স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থী, সোনারগাঁয়ে বেড়াতে আসা পর্যটক, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা নিতে আসা রোগী ও উপজেলার ২৪টি সরকারি দপ্তরে আসা মানুষকে ঘণ্টার পর ঘণ্টা দুর্ভোগে পড়তে হচ্ছে।
এলাকাবাসী বলেন, মোগরাপাড়া চৌরাস্তা এলাকায় সড়কটির ওপর বিভিন্ন অবৈধ স্থাপনা রয়েছে। পাশাপাশি সড়ক দখল করে অটোরিকশার পার্ক করা হচ্ছে। এ কারণে সড়কে যানজট লেগেই থাকে।
গতকাল বুধবার মোগরাপাড়া চৌরাস্তা এলাকায় গিয়ে দেখা যায়, চৌরাস্তা থেকে চিলারবাগ শহীদ মজনু পার্ক পর্যন্ত আধা কিলোমিটার এলাকায় এ সড়কে যানবাহন থমকে আছে। প্রচণ্ড গরমের মধ্যে বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী ও বিভিন্ন বিপণিবিতানে জামাকাপড় কিনতে আসা মানুষ দুর্ভোগে পড়েছে।
এলাকার অটোরিকশাচালক আবু সাঈদ বলেন, ‘আধা কিলোমিটার দূরত্বের এ সড়কটি পার হতে প্রতিদিন আমাদের এক থেকে দুই ঘণ্টা যানজটে পড়ে থাকতে হয়। এ সড়কের যানজট নিরসন করার চেষ্টা করে পুলিশ ব্যর্থ হয়েছে। এখন সড়কে কেউ দায়িত্ব পালন করতে আসছে না।’
নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশের একজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা প্রথম আলো কে বলেন, এ সড়কের যানজট কমাতে হলে সড়কের ওপর থেকে অবৈধ স্থাপনা ও পার্কিং সরাতে হবে। প্রভাবশালী ব্যক্তিরা অবৈধ পার্কিং এবং স্থাপনা নির্মাণ করায় আমরা এসব অপসারণ করতে পারছি না।’
সোনারগাঁ নাগরিক কমিটির সাধারণ সম্পাদক আমির হোসাইন বলেন, এ সড়ককে যানজটমুক্ত করতে প্রশাসনকে অনুরোধ করতে করতে মানুষ ক্লান্ত হয়ে পড়েছে।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) শাহীনুর ইসলাম বলেন, ‘এ সড়ককে যানজটমুক্ত করতে আমরা কিছুদিন আগে উচ্ছেদ অভিযান চালিয়েছিলাম। অভিযান শেষ হওয়ার এক ঘণ্টা পর আবারও স্থাপনা বসানো হয়।’
এ বিষয়ে জানতে চাইলে নারায়ণগঞ্জের জেলা প্রশাসক রাব্বী মিয়া গতকাল প্রথম আলো কে বলেন, ‘ঈদ সামনে রেখে আমরা উচ্ছেদ অভিযানেও যেতে পারছি না। এ কারণে এ সড়কে যানজটের সৃষ্টি হচ্ছে।’

No comments

Thanks you for comment

Powered by Blogger.