Header Ads


moving image by marquee html code

সোনারগাঁয়ে আল-মোস্তফা গ্রুপকে বালু অপসারনের নির্দেশ

স্টার নিউজ : নারায়নগঞ্জের সোনারগাঁওয়ে বৈদ্যেরবাজার এলাকায় মেঘনা নদী থেকে আল মোস্তফা গ্রুপ কোম্পানীকে বালু অপসারনের নির্দেশ দিয়েছেন নারায়ণগঞ্জ জেলা বিআইডব্লিউটিএ।বুধবার দুপুরে বিআইডব্লিউটিএ নারায়ণগঞ্জ নদী বন্দরের উপ-পরিচালক মো. শহীদুল্লাহ’র নেতৃত্বে সহকারী পরিচালকরা সরেজমিনে পরিদর্শনে গিয়ে নদী ভরাট বন্ধের নির্দেশ দেন এবং আগামী সাত দিনের মধ্যে ভরাটকৃত বালু মেঘনা নদী থেকে অপসারণ করে নদীকে পূর্বের রূপ ফিরিয়ে আনার নির্দেশ দিয়েছে।সময় উপস্থিত ছিলেন,নারায়ণগঞ্জ জেলা নদী বন্দরের উপ-পরিচালক এহতাশেমুল পারভেজ,সহকারী পরিচালক শাহ আলম, সহকারী তত্ত্বাবধায়ক জাহাঙ্গীর আলম।
সরেজমিনে পরিদর্শনে উপ-পরিচালক মো. শহীদুল্লাহ বলেন,বিআইডব্লিউটিএ নারায়ণগঞ্জ নদী বন্দরের
সহকারী তত্বাবধায়ক সম্প্রতি ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে পূর্ণাঙ্গ বিষয়টি অবগত করলে দখলদারিত্ব দেখে ভাষা হারিয়ে ফেলেছি।এতবড় দূর্ণীতি যেভাবে হচ্ছে তা অবিশ্বাস্য।
আল মোস্তফা গ্রুপের মালিকানাধীন ‘ইউরো মেরিন’ শিপ বিল্ডার্স নামের প্রতিষ্ঠানটি স্থানীয় কিছু অসাধু ব্যক্তিদের সহাযোগিতায় বৈদ্যেরবাজার এলাকায় নদীর পশ্চিম দিকে ১৪ লাখ বর্গফুট পরিমান মেঘনা নদীর তীর ও ভূমি ভরাট করেছে।আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে ভরাটকৃত বালু নিজ খরচে সরিয়ে নিতে নোটিশ দেওয়া হয়েছে। এছাড়াও  সোনারগাঁ থানার অফিসার ইনচার্জকে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য বলা হয়েছে।বেঁধে দেওয়া সময়ের মধ্যে মেঘনা নদীর ওই স্থান পূর্বের ন্যায় ফিরিয়ে আনা না হলে আমরা বালু সরিয়ে তা নিলামে বিক্রি করে দিব।পাশাপাশি ওই কোম্পানির বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করবো।
উল্লেখ্য,বৈদ্যেরবাজার এলাকায় আল মোস্তফা গ্রুপের ‘ইউরো মেরিন’ শিপ বিল্ডার্স নামে একটি প্রতিষ্ঠান গত একমাস ধরে মেঘনা নদীর তীরবর্তী খাস জমি,নদী ও সওজের জায়গা অবৈধভাবে দখল করে স্থানীয় ভূমি দস্যুদের সহায়তায় ভরাট করে দখল নিচ্ছে। বিষয়টি গনমাধ্যমে প্রকাশ হলে টনক নড়ে বিআইডব্লিউটিএ’র।এরই ধারাবাহিকতায় গতকাল বুধবার সরেজমিনে এসে বিআইডব্লিউটিএ কর্মকর্তারা পরিদর্শন করে বালু ভরাট বন্ধ করে দেয়।

No comments

Thanks you for comment

Powered by Blogger.