Header Ads


moving image by marquee html code

সোনারগাঁয়ে যুবক খুন,আটক ৬

স্টার নিউজঃ নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁও উপজেলায়  বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে মোহাম্মদ আলী মামুন(২৬)নামের এক যুবককে কুপিয়ে হত্যা করেছে সন্ত্রাসীরা।ঘটনাটি ঘটেছে বুধবার রাতে উপজেলার পিরোজপুর ইউনিয়নের কান্দারগাঁও ভবনাথপুরের মাঝামাঝি চর ভবনাথপুর মৌজাস্থ অবৈধভাবে দখল করা ইউনিক কম্পানির বালুর মাঠে বুধবার রাত ১২ টায়। এ ঘটনায় সোনারগাঁও থানা পুলিশ পিরোজপুর ইউপি’র ৭ নং ওয়ার্ডের মেম্বার সহ ৬ জনকে আটক করেছে এবং মামলার প্রস্তুতি চলছে।
জানা যায়,উপজেলার পিরোজপুর  ইউনিয়নে মেঘনা নদীর তীরবর্তী জৈনপুর,রতনপুর,ভবনাথপুর ও ছয়হিস্যা মৌজায় ইউনিক গ্রুপ নামের একটি প্রতিষ্ঠান উচ্চ আদালতরে নিষেধাজ্ঞা  অমান্য করে স্থানীয় নেতা ও প্রভাবশালীদের সাথে নিয়ে জোর পূর্বক  বালু ভরাট করে আসছে।এতে বাধা দেওয়ায় বুধবার রাতে রাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে মোহাম্মদ আলী ওরফে মামুন নামের এক যুবককে কুপিয়ে হত্যা করেছে পিরোজপুর  ইউপির ৭নং ওয়ার্ড  সদস্য ইউনিক গ্রুপের অবৈধ দখল বানিজ্যের সাথে জড়িত মোশারফ হোসন ও তার সন্ত্রাসী বাহিনী।পুলিশ ঘটনার সাথে জড়িত থাকায় ভবনাথপুর গ্রামের আব্দুল বাতেনের ছেলে মোশারফ হোসেন মেম্বার,মৃত মোতালেবের ছেলে জসীম,আব্দুর রহমান হামিদ,মোতালেবের ছেলে শহীদুল্লাহ,মিছির আলীর ছেলে হাবিবুর রহমান ও কান্দারগাঁও গ্রামের রকমান সরকারের ছেলে শামীমকে আটক করেছে।
সরেজমিনে মোহাম্মদ আলীর মামা পিরোজপুর ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি জাকির হোসেন জানান,ইউনিক গ্রুপ নামের একটি প্রতিষ্ঠান উচ্চ আদালতের নিষেধাজ্ঞা  অমান্য করে স্থানীয় নেতা ও প্রভাবশালীদরে দিয়ে জোর পূর্বক  আমাদের পৈত্রিক  সম্পত্তিতে অবধৈ ভাবে বালু ভরাট করে আসছে। কৃষকের ফসলী জমি রক্ষা করতে গত কিছুদিন পূর্বে কয়কেটি গ্রামের শতশত নারী পুরুষ মানববন্ধন ও বিক্ষোভ করেছে।এ ছাড়াও গত ১৩ ডিসেম্বর ২০১৭ ইং তারিখে জোর করে অবৈধ ভাবে বালু ভরাটের প্রতিকার চেয়ে ভূমি  মন্ত্রনালয়,কৃষি মন্ত্রনালয়,স্বরাষ্ট্র মন্ত্রনালয়,পুলিশের আইজীপি  পুলিশ সুপার ও উপজেলা নির্বাহী  র্কমর্কতা সহ প্রশাসনের ১৪টি দফতরে স্থানীয় ১০০ জন কৃষিকের সাক্ষরিত  অভিযোগ দায়ের করেছিল।এতে ক্ষিপ্ত  হয়ে স্থানীয় ৭ নং ইউপি সদস্য ভবনাথপুর গ্রামের আব্দুল বাতেনের ছেলে মোশারফ হোসেন আমাকে ও আমার পরিবারের লোক জনকে নানা ভাবে প্রান নাশের হুমকি দিয়ে আসছিলো।আমার ও আমার পরিবারের জীবনের নিরাপত্তায় গত ০২-০১-২০১৮ইং তারিখে সোনারগাঁও থানায় সাধারন ডায়রী করেছি,যার নং ৭৫। পরিকল্পিত ভাবে মোশারফ ও তার বাহীনি আমার ভাগিনাকে হত্যা করেছে।
নিহত মোহাম্মদ আলী উপজেলার কান্দারগাঁও গ্রামের মৃত আরজান আলীর ছেলে।
অতিরিক্ত  পুলিশ সুপার (অপরাধ) সাজেদুর রহমান খ-সার্কেল ও সোনারগাঁ থানা ওসি তদন্ত ঘটনাস্থল পরিদর্শন  করেছেন।
সোনারগাঁও থানার  ওসি(তদন্ত)ওবায়দুল হক জানান,হত্যার ঘটনায় ৬ জনকে আটক করেছি,এর মধ্যে মোশারফ মেম্বারকে ঘটনাস্থলের কাছে রাস্তা থেকে মোবাইলে কথা বলা অবস্থায় আটক করা হয়।তিনি আরো বলেন, এই হত্যার সাথে জড়িতদের গ্রেফতারী অভিযান চলছে।

No comments

Thanks you for comment

Powered by Blogger.