Header Ads


moving image by marquee html code

সোনারগাঁয়ে কলেজ শিক্ষকের উপর হামলার প্রতিবাদে শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন ও বিক্ষোভ

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁওয়ে এক কলেজের শিক্ষক রুহুল আমিন সুমনের উপর হামলার প্রতিবাদে ওই কলেজের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা মানববন্ধন ও বিক্ষোভ করেছেন। রোববার দুপুরে জামপুরের মীরেরটেক বাজারে তালতলা তদন্ত কেন্দ্রের সামনে এ মানববন্ধন ও বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন।  মানববন্ধন কর্মসূচিতে শিক্ষক ও  শিক্ষার্থীরা বলেন, সোনারগাঁও নলেজ কিং কলেজের সামনে দীর্ঘ দিন ধরে স্থানীয় বাদল, মিঠু মিয়া, সবুজ, নাইম, রাকিবসহ ৮/১০ জনের  বখাটে যুবক কলেজে আসা যাওয়ার পথে কলেজ পড়–য়া ছাত্রীদের উত্যক্ত করে আসছে। ছাত্রীরা তাদের বিষয়টি কলেজের শিক্ষকদের অবহিত করার পর কলেজের শিক্ষক রুহুল আমিন সুমনসহ অন্যান্য শিক্ষকরা বখাটের যুবকদের উত্যক্ত না করার জন্য শাসিয়ে দেন। এর জের ধরে গত শনিবার শিক্ষক রুহুল আমিন কলেজ থেকে বাড়ি ফেরার পথে মীরেরটেক এলাকায় পরিকল্পিতভাবে তার উপর হামলা চালিয়ে লোহার রড দিয়ে পিটিয়ে মারাত্মকভাবে আহত করা হয়। তারা শিক্ষক রুহুল আমিনের উপর হামলাকারীদের দ্রুত গ্রেফতার করে আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান।  ওই কলেজের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী ফারজানা আক্তার ও শারমিন আক্তার জানান, আমাদের শিক্ষকের উপর হামলাকারীদের অবিলম্বে গ্রেফতার করা না হলে পরবর্তীতে আরো কঠোর কর্মসূচী দেওয়া হবে। আগামী সাত দিনের মধ্যে বখাটে যুবকদের গ্রেফতারের আলটিমেটাম দেন তারা।  সোনারগাঁও নলেজ কিং কলেজের শিক্ষক আশরাফুল ইসলাম ও আকলিমা বেগম জানান, বখাটেদের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করায় শিক্ষককে মেরে আহত করা হয়েছে। ঘটনাটি অত্যন্ত নেক্কার জনক। অবিলম্বে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করার জন্য স্থানীয় প্রশাসনের জরুরী হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন তারা।  সোনারগাঁও নলেজ কিং কলেজের অধ্যক্ষ শাহ জাহান মিয়া বলেন, আমাদের কলেজের শিক্ষককে আহত করার ঘটনায় আমরা মর্মহত। অবিলম্বে আসামী গ্রেফতার না হলে সকল শিক্ষার্থী ও অভিভাবক নিয়ে ঢাকা বাইপাস সড়ক অবরোধ সহ কঠোর কর্মসূচী ঘোষণা করা হবে। এ বিষয়ে মাননীয় শিক্ষামন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন তিনি। এ দিকে শিক্ষকের উপর হামলার ঘটনায় বখাটেদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করার পর বাদল মিয়া নামে এক বখাটে যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।  সোনারগাঁও থানার ওসি মোরশেদ আলম পিপিএম জানান, শিক্ষকের উপর হামলার ঘটনায় একজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। অন্য আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চালাচ্ছে পুলিশ।

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ে এক কলেজের শিক্ষক রুহুল আমিন সুমনের উপর হামলার প্রতিবাদে ওই কলেজের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা মানববন্ধন ও বিক্ষোভ করেছেন। রোববার দুপুরে জামপুরের মীরেরটেক বাজারে তালতলা তদন্ত কেন্দ্রের সামনে এ মানববন্ধন ও বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন।
মানববন্ধন কর্মসূচিতে শিক্ষক ও  শিক্ষার্থীরা বলেন, সোনারগাঁ নলেজ কিং কলেজের সামনে দীর্ঘ দিন ধরে স্থানীয় বাদল, মিঠু মিয়া, সবুজ, নাইম, রাকিবসহ ৮/১০ জনের  বখাটে যুবক কলেজে আসা যাওয়ার পথে কলেজ পড়–য়া ছাত্রীদের উত্যক্ত করে আসছে। ছাত্রীরা তাদের বিষয়টি কলেজের শিক্ষকদের অবহিত করার পর কলেজের শিক্ষক রুহুল আমিন সুমনসহ অন্যান্য শিক্ষকরা বখাটের যুবকদের উত্যক্ত না করার জন্য শাসিয়ে দেন। এর জের ধরে গত শনিবার শিক্ষক রুহুল আমিন কলেজ থেকে বাড়ি ফেরার পথে মীরেরটেক এলাকায় পরিকল্পিতভাবে তার উপর হামলা চালিয়ে লোহার রড দিয়ে পিটিয়ে মারাত্মকভাবে আহত করা হয়। তারা শিক্ষক রুহুল আমিনের উপর হামলাকারীদের দ্রুত গ্রেফতার করে আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান।
ওই কলেজের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী ফারজানা আক্তার ও শারমিন আক্তার জানান, আমাদের শিক্ষকের উপর হামলাকারীদের অবিলম্বে গ্রেফতার করা না হলে পরবর্তীতে আরো কঠোর কর্মসূচী দেওয়া হবে। আগামী সাত দিনের মধ্যে বখাটে যুবকদের গ্রেফতারের আলটিমেটাম দেন তারা।
সোনারগাঁ নলেজ কিং কলেজের শিক্ষক আশরাফুল ইসলাম ও আকলিমা বেগম জানান, বখাটেদের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করায় শিক্ষককে মেরে আহত করা হয়েছে। ঘটনাটি অত্যন্ত নেক্কার জনক। অবিলম্বে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করার জন্য স্থানীয় প্রশাসনের জরুরী হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন তারা।
সোনারগাঁ নলেজ কিং কলেজের অধ্যক্ষ শাহ জাহান মিয়া বলেন, আমাদের কলেজের শিক্ষককে আহত করার ঘটনায় আমরা মর্মহত। অবিলম্বে আসামী গ্রেফতার না হলে সকল শিক্ষার্থী ও অভিভাবক নিয়ে ঢাকা বাইপাস সড়ক অবরোধ সহ কঠোর কর্মসূচী ঘোষণা করা হবে। এ বিষয়ে মাননীয় শিক্ষামন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন তিনি।
এ দিকে শিক্ষকের উপর হামলার ঘটনায় বখাটেদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করার পর বাদল মিয়া নামে এক বখাটে যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।
সোনারগাঁ থানার ওসি মোরশেদ আলম পিপিএম জানান, শিক্ষকের উপর হামলার ঘটনায় একজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। অন্য আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চালাচ্ছে পুলিশ।

No comments

Thanks you for comment

Powered by Blogger.